Header Ads

বিজেপি ছাড়লেন দিলীপ নুনিসা ও দিপালী হাপিলা


বিপ্লব দেব হাফলং
বিজেপি দল ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দিলেন দিলীপ নুনিসা। উত্তর কাছাড় পার্বত্য স্বশাসিত পরিষদের নির্বাচনে বিজেপির হয়ে টিকিটের জন্য আবেদন করেছিলেন দিলীপ নুনিসা এমনকি পরিষদের ২৮ টি আসনের জন্য বিজেপির যে প্রার্থী তালিকা রাজ্য বিজেপির কাছে পাঠানো হয়েছিল এতে দিলীপ নুনিসার নাম ছিল। কিন্তু রাজ্য বিজেপির সভাপতি রঞ্জিত কুমার দাস যে চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেন এতে দিলীপ নুনিসার নাম না থাকায় দিলীপবাবু ক্ষুদ্ধ হয়ে বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেস দলে যোগ দেন বুধবার। এবার কংগ্রেসের টিকিটে নির্বাচনে অবতীর্ন হবেন দিলীপ নুনিসা। কংগ্রেস পার্বত্য পরিষদের হামরি আসন থেকে দিলীপবাবুকে প্রার্থী করেছে। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন বৃহষ্পতিবার দিলীপ নুনিসা মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। তাছাড়া পরিষদের বিজেপি সদস্য তথা ইএম থাইসোডাও থাওসেন বিজেপির টিকিট না পেয়ে নির্দল প্রার্থী হিসেবে পরিষদের হাজাডিসা আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এবার বিজেপি পরিষদের ২৮ টি আসনের মধ্যে ১৫ টি আসনে নতুন মুখকে প্রার্থীত্ব দিয়েছে।  এদিকে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন দাওটুহাজা আসনের জন্য জেলা কংগ্রেস সভাপতি নির্মল লাংথাসা হাফলং আসনের জন্য কংগ্রেস প্রার্থী ডেনিয়েল লাংথাসা কালাচান্দ আসনের কংগ্রেস প্রার্থী অরিপম বডো সহ কংগ্রেসের বাকি আসনের প্রার্থীরা বৃহষ্পতিবার মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এছাড়া বিজেপি অগপ দলের প্রার্থীরা আজ মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।  ন্যাশনাল পিপোলস পার্টি (এনপিপি) পার্বত্য পরিষদের ২৮ টি আসনের মধ্যে ১৫ টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। এনপিপির জেলা সভাপতি তথা প্রাক্তন বিধায়ক সমরজিৎ হাফলংবার গুঞ্জুং আসন থেকে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এদিকে প্রদেশ বিজেপির মহিলা মূর্চারসহ-সভানেত্রী দিপালী হাপিলা বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন। আজ বিকেলে রাজীব ভবনে এক সাংবাদিক সন্মেলনে দিপালী হাপিলা বিজেপি নেতৃত্বের প্রতি ক্ষোভ উগরে দিয়ে বলেন ২০১৩ সালে বিজেপিতে যোগ দিয়ে এতদিন দলের নিয়ম শৃঙ্খলা মেনে কাজ করে গেছেন কিন্তু এবার পরিষদের নির্বাচনে বিজেপির অনেক সক্রিয় নেতা কর্মীকে টিকিট দেওয়া হয়নি। তাই বিজেপি দলে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। সাংবাদিক সন্মেলনে দিলীপ নুনিসা বিজেপি নেতৃত্বের বিরূদ্ধে প্রচন্ড ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এদিকে উত্তর কাছাড় পার্বত্য স্বশাসিত পরিষদের ২৮ টি আসনের জন্য মোট ১৪০ টি মনোনয়নপত্র জমা পড়েছে।

No comments

Powered by Blogger.