Header Ads

বিজেপি-কংগ্ৰেসের গোপন আঁতাতে বিল ঝুলে গেল

নয়া ঠাহর প্ৰতিবেদন, নয়াদিল্লিঃ বহু প্ৰত্যাশিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলকে শেষ পৰ্যন্ত হিমঘরে পাঠিয়ে দেওয়া হল। বিভিন্ন সূত্ৰ দাবি করছে, কংগ্ৰেসের সঙ্গে বিজেপির এক গোপন আঁতাতের প্ৰেক্ষিতে তা করা হয়েছে। তার পরিবৰ্তে বিজেপি উত্থাপিত উচ্চ বৰ্ণের মধ্যে আৰ্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া অংশের সরকারী চাকরি এবং উচ্চ শিক্ষা প্ৰতিষ্ঠানে ১০ শতাংশ সংরক্ষণের বিলকে সমৰ্থন করবে কংগ্ৰেস। সেই সৰ্তেই গতকাল অৰ্থাৎ বুধবার রাজ্যসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা না থাকা সত্ত্বেও বিলটি বিনা বাধায় পাস হয়ে গেল। ঝুলিয়ে রাখা হল নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলকে। এই বিলকে ঘিরে অসমে যেভাবে লাগামছাড়া আন্দোলন মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছিল তা মোটামুটি ঠাণ্ডা হল। অপরদিকে, সুপ্ৰিম কোৰ্টের কড়া নিৰ্দেশ রয়েছে ৫০ শতাংশের বেশি সংরক্ষণের ব্যবস্থা থাকবে না দেশে। ইতিমধ্যে ২৭ শতাংশ মণ্ডল কমিশন উপজাতি এবং তফশিল ভুক্ত জাতি উপজাতীদের নিয়ে ৪৯ শতাংশ সংরক্ষণ হয়ে আছে। এখন ১০ শতাংশ সংরক্ষণ যোগ হলে তা ৫৯ শতাংশ হবে। তা সুপ্ৰিম কোৰ্ট মানবে না। তাই আবার সংবিধান সংশোধন করেও ১০ শতাংশ সংরক্ষণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্ৰ। অপরদিকে, অসমের ৬ জনগোষ্ঠীকে তফশিল করার ব্যাপারটিও ঝুলে থাকল। কারণ সেখানেও সংবিধান সংশোধনের প্ৰয়োজন আছে। এখন আগামী নিৰ্বাচনের প্ৰতি লক্ষ্য রেখে বিজেপি কি পদক্ষেপ গ্ৰহণ করে তাই দেখার। বিজেপির কাছে এখন শেষ রাস্তা হচ্ছে অৰ্ডিন্যান্স জারি করে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলটিকে কাৰ্যকরী করা।

No comments

Powered by Blogger.