Header Ads

৩৩ শতাংশ মহিলার আসন সংরক্ষণ হলে মহিলারা সুরক্ষিত হবেঃ ববিতা শৰ্মা




নয়া ঠাহর প্ৰতিবেদন, গুয়াহাটিঃ রাজ্য কংগ্ৰেস নেত্ৰী ববিতা শৰ্মা রবিবার দিসপুর প্ৰেসক্লাবে মুখোমুখি শীৰ্ষক অনুষ্ঠানে বললেন নারীদের নিরাপত্তার অভাব রয়েছে আজও। বিশেষ করে রাজনৈতিক জগতে নিরাপত্তা নেই। তাঁকেও ‘মিটু’-র সমস্যার মোকাবিলা করতে হয়েছিল একবার। তিনি বলেন ৩৩ শতাংশ মহিলাদের জন্য সংরক্ষণের বিল লোকসভাতে পড়ে আছে। কংগ্ৰেস সভানেত্ৰী সনিয়া গান্ধী, সৰ্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধী, প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদীকে চিঠি দিয়ে বলেছেন আপনারা লোকসভায় মহিলা সংরক্ষণ বিলটি উত্থাপন করুন কংগ্ৰেস সমৰ্থন দেবে। রাজনৈতিক জগতে ববিতা শৰ্মার পা রাখা নিয়ে এদিন বলেন- তিনি কোনওদিন ভাবেননি রাজনীতির জগতে আসবেন। সমাজের কাজ করতে গেলে রাজনীতিতে আসা জরুরি। তাই রাজনীতিতে থেকেই ‘বিদেশত আপন মানুহ’ শীৰ্ষক জনপ্ৰিয় সিরিয়ালের প্ৰধান ববিতা শৰ্মা বলেন- কটন কলেজে পড়াশুনোর সময়ই শিলঙের এক মহিলাদের অনুষ্ঠানে তাঁকে আমন্ত্ৰণ করে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। সেখানে গিয়ে জানলেন সেটা সুন্দরী প্ৰতিযোগিতা ছিল। প্ৰতিযোগিতায় তিনি অংশগ্ৰহণ করে উত্তরপূৰ্বাঞ্চলের সুন্দরী হিসেবে তিনি নিৰ্বাচিত হন। তারপর থেকেই সংস্কৃতি জগতের সঙ্গে তাঁর হাতেখড়ি হয়। ইতিহাসে স্নাতকোত্তর উত্তীৰ্ণ ববিতা শৰ্মা দূরদৰ্শনের অ্যাঙ্করিংয়ের কাজ শুরু করেছিলেন। তারপর স্বামী চিন্ময় শৰ্মার সহযোগিতায় ‘বিদেশত আপোন মানুহ’ শুরু হয়। অত্যন্ত জনপ্ৰিয় সিরিয়াল ২৩০টি এপিসোড সম্পন্ন হয়েছে। তাঁর স্বামী এবং তিনি বিশ্বের ৫০-এরও বেশি দেশ ঘুরে বিদেশে বসবাসকারী অসমিয়াদের জীবনযাত্ৰা, তাদের জীবীকা, বিভিন্ন ক্ষেত্ৰে তাদের সফলতা তুলে ধরেন। সদ্য রিলিজ হওয়া ‘দি অ্যাক্সিডেন্টাল প্ৰাইম মিনিস্টার’ সিনেমাটি সমালোচনা করে তিনি বলেন- ছবিটির মাধ্যমে কংগ্ৰেসকে বদনাম করা হয়েছে। শিলচরে কবি শ্ৰীজাতের ওপর হামলার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্ৰকাশ করে বলেন- দেশে বিভিন্ন জনগোষ্ঠীর মধ্যে বিভাজনের চেষ্টা করা হচ্ছে। সাম্প্ৰদায়িক সম্প্ৰীতি নষ্ট হচ্ছে। দেশে এক অসহিষ্ণুতার পরিবেশের সৃষ্টি হচ্ছে। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্ৰতিবাদে সবাইকেই এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। প্ৰসঙ্গক্ৰমে এদিন তাঁর স্বামী চিন্ময় শৰ্মা ‘বিদেশত আপোন মানুহ’ সিরিয়ালটি সম্পৰ্কে বললেন- এই সিরিয়ালটির শ্যুটিং করতে বিদেশে বসবাসকারী বিভিন্ন অসমিয়াদের খুঁজে বের করতে অনেক কষ্ট করতে হয়েছে। সিরিয়ালটির জন্য লন্ডনের টেমস নদীর তীরে ড০ ভূপেন হাজরিকাকে বসিয়ে চিত্ৰগ্ৰহণ করা হয়েছিল। 

No comments

Powered by Blogger.