Header Ads

সুপ্ৰিম কোৰ্টের হস্তক্ষেপ নাগরিকত্ব সংশোধনি বিলে, উরুকার দিনেও প্ৰতিবাদ


ফাইল ছবি
নয়া ঠাহর প্ৰতিবেদন, গুয়াহাটিঃ নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল লোকসভায় বিজেপির সংখ্যাগরিষ্ঠতার জেরে পাস হয়ে গেছে। কিন্তু রাজ্যসভায় পাস হয়নি। এক সংগঠনের পক্ষ থেকে সুপ্ৰিম কোৰ্টে এক রিট আবেদন দাখিল করা হয়েছিল। শীৰ্ষ আদালত অন্তৰ্বৰ্তীকালিন এক আদেশ দিয়ে বলেছে- যেহেতু বিলটি এখনও রাজ্যসভায় পাস হয়নি, রাজ্যসভায় পাস হওয়ার পরে বিষয়টি নিয়ে পৰ্যালোচনা করা হতে পারে। বিলটি ধৰ্ম নিরপেক্ষ নয় সংগঠনটি এই অভিযোগ তুলে রিট আবেদন করেছিল। তাই বিষয়টি এখন সুপ্ৰিম কোৰ্টে নজরে চলে এল। সোমবার ভোগালি বিহুর উরুকার ভোজ। এদিনও রাজ্যে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে প্ৰতিবাদ অব্যাহত থাকে। মুখমন্ত্ৰীর নিজের জেলা মাজুলিতে এক ডিভিডি প্ৰকাশ করতে গিয়েছিলেন মাজুলির ওপরে। সেখানেও জাতীয়তাবাদী যুব ছাত্ৰ পরিষদ ‘মুখ্যমন্ত্ৰী গো ব্যাক’ বলে স্লোগান দিয়ে কালো পতাকা দেখায়। কেএমএসএস নেতা অখিল গগৈ এদিন গুয়াহাটির সসল অঞ্চলে অন্যান্য সংগঠনের সাহায্য নিয়ে অনসনে বসেছেন। এদিনে অগপ ৩০ জানুয়ারি থেকে রাজ্যের প্ৰতিটি জেলায় আন্দোলনের কৰ্মসূচি গ্ৰহণ করেছে। ২৪ জানুয়ারি অগপ-র বিধায়করা অনসনে বসবেন। মরিগাঁওয়ে ৬ থেকে ৯ ফেব্ৰুয়ারি শংকরদেব সংঘ বাৰ্ষিক অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে। সেই অধিবেশনে প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদীকে আমন্ত্ৰন জানানো হয়েছে। কিন্তু এই অধিবেশনের কৰ্মকৰ্তাদের একাংশ নাগরিকত্ব বিল সংশোধের বিরোধীতায় সামিল হয়েছে। তাই প্ৰধান মন্ত্ৰীর সমৰ্থন এক অনিশ্চয়তার মধ্যে পরেছে। বিটিসি প্ৰধান হাগ্ৰামা মহিলারি দিল্লিতে ছয় জনগোষ্ঠীকে তফশিল ভুক্ত করার প্ৰস্তাবের প্ৰতিবাদ করেছেন। সেদিকে লক্ষ্য রেখে কেন্দ্ৰীয় সরকার হিমন্ত বিশ্ব শৰ্মাকে অধ্যক্ষ এবং মন্ত্ৰী চন্দন ব্ৰহ্ম আহ্বায়ক হিসেবে মনোনীত করে এক ক্যাবিনেট সাব কমিটি গঠন করে দিয়েছে। এই কমিটি এই জনগোষ্ঠীর বিষয়টি পৰ্যালোচনা করে দেখবে। এদিকে সোমবার চারদিকে ভোগালি বিহুর উৎসব চলছে। এর মধ্যেই গুয়াহাটি মহানগরের ভাঙাগড়ের কালী মন্দিরে চুরির ঘটনা ঘটে। প্ৰধান পুরোহিতকে আটকে রেখে স্বৰ্ণালংকার সহ বহু মূল্যবান সামগ্ৰী চুরি করে নিয়ে পালায় দুৰ্বত্তরা।

No comments

Powered by Blogger.