Header Ads

নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ইস্যু, বাঙালিদের অস্তিত্বের লড়াইঃ সুস্মিতা দেব

নয়া ঠাহর প্ৰতিবেদন, গুয়াহাটিঃ  নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ইস্যুকে কেন্দ্ৰ করে বরাক এবং ব্ৰহ্মপুত্ৰ উপত্যকার মাঝে স্পষ্ট একটি বিভাজন তৈরি হল। সাংসদ সুস্মিতা দেব, উত্তর করিমগঞ্জের বিধায়ক কমলাক্ষ্য দে পুরকায়স্থ প্ৰথম থেকেই ধৰ্মনিরপেক্ষতার ভিত্তিতে হিন্দু মুসলিম নিৰ্বিশেষে ২০১৪ সালের ভিত্তিতে নাগরিকত্ব দেওয়ার পক্ষে ওকালতি করে গেছেন। ব্ৰহ্মপুত্ৰ উপত্যকার কংগ্ৰেস নেতারা বিশেষ করে রাজ্য সভাপতি রিপুন বরা বরাবর অসম চুক্তির আধারে ১৯৭১ সালের ২৪ মাৰ্চকে ভিত্তি বৰ্ষ করে নাগরিকত্ব দেওয়ার পক্ষে বলে যাচ্ছেন। সোমবার হাইলাকান্দির রাজীব ভবনে কয়েকশ কংগ্ৰেস কৰ্মী রিপুন বরা মুৰ্দাবাদ ধ্বনিতে উত্তাল করে তুললেন। কারণ হাইলাকান্দি জেলার কংগ্ৰেস সভাপতি প্ৰাক্তন মন্ত্ৰী গৌতম রায়ের পুত্ৰ রাহুল রায় বিলকে সমৰ্থন করায় সভাপতি রিপুন বরা তাঁকে দল থেকে বহিষ্কার করেছেন। তারই প্ৰতিবাদে এদিন হাইলাকান্দি রাজীব ভবনে রাহুল রায়ের সমৰ্থকরা উত্তাল করে তোলেন। তারা দাবি জানিয়েছেন- একই স্থিতি গ্ৰহণ করার জন্য সাংসদ সুস্মিতা দেব, বিধায়ক কমলাক্ষ দে পুরকায়স্থকে কেন বহিষ্কার করা হচ্ছে না। কয়েকশ কংগ্ৰেস কৰ্মী এদিন হুমকি দিয়ে বলেছেন ৭২ ঘন্টার মধ্যে রাহুল রায়ের বিরুদ্ধে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত প্ৰত্যাহার করতে হবে। নতুবা গণহারে পদত্যাগ করবে কংগ্ৰেস থেকে। এদিকে রাহুলের বাবা গৌতম রায় অভিযোগ করে বলেন কংগ্ৰেসের আজ সুদিন নেই। এই বলে তিনি গান গেয়ে ওঠেন- ‘দিনগুলি মোর সোনার খাঁচায় রইলা না’। তিনি কংগ্ৰেসের মৃদু সমালোচনা করেন। প্ৰশ্ন করা হয়েছিল তিনি কি বিজেপি যোগ দিচ্ছেন। জবাবে বলেন- বিজেপিতে বরাবরই বহু নেতা রয়েছে। সাংসদ সুস্মিতা দেব নাগরিকত্ব প্ৰশ্নে বলেছেন- এই বিল যদি পাস না হয় তবে বাঙালিদের অস্তিত্ব বিপন্ন হয়ে পড়বে। আগামী নিৰ্বাচনে কংগ্ৰেসের অবস্থা খারাপ হয়ে যাবে। কাছাড়, হাইলাকান্দি, করিমগঞ্জে কংগ্ৰেস নিশ্চিন্ন হয়ে যাবে। প্ৰাক্তন মুখ্যমন্ত্ৰী তরুণ গগৈও ২০১৪ সালকে ভিত্তি বৰ্ষ হিসেবে গন্য করে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলটি দাবি করেছিলেন। সৰ্বভারতীয় মহিলা কংগ্ৰেসের সভানেত্ৰী সুস্মিতা দেব জানান- তিনিও জেপিসির কাছে লিখিতভাবে ২০১৪ সালকে ভিত্তি বৰ্ষ হিসেবে গণ্য করে নাগরিকত্ব বিলটির দাবি জানিয়েছিলেন। কাৰ্যত নাগরিকত্ব ইস্যুতে কংগ্ৰেসে ব্ৰহ্মপুত্ৰ এবং বরাকে স্পষ্ট বিভাজন হয়ে গেল। প্ৰসঙ্গত, সুস্মিতা দেব জনসভা করার সময় একাংশ যুবক অৰ্ধউলঙ্গভাবে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরোধিতা করে। বরাকের কংগ্ৰেসের প্ৰাক্তন মন্ত্ৰী সিদ্দিক আহমেদ দাবি করেছেন বরাকের ৭৫ শতাংশ মানুষ নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরোধী।

No comments

Powered by Blogger.