Header Ads

নেতাজিকে বিরল সম্মান, আন্দামানের তিনটি দ্বীপের নাম পরিবৰ্তন মোদি সরকারের

নয়া ঠাহর প্ৰতিবেদনঃ আজাদ হিন্দ সরকারকে সম্মান জানিয়ে এবছরই নজিরবিহীনভাবে দিল্লির লালকেল্লাতে পতাকা উত্তোলন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এবার নেতাজির সম্মানে পাল্টে দিলেন আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের অধীন তিনটি দ্বীপের নাম। এদের মধ্যে একটির নাম হল নেতাজির নামে। বাকি দুটি যথাক্রমে শহিদ এবং স্বরাজ দ্বীপ। ১৯৪৩ খ্রিষ্টাব্দের ৩০ ডিসেম্বর পোর্ট ব্লেয়ারেই প্রথম জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন নেতাজি। পোর্ট ব্লেয়ারে প্রতিষ্ঠিত হয় ‘ভারতের প্রথম স্বাধীন সরকার।’ যদিও, পরবর্তীকালে রাজনৈতিক টানাপোড়েনে তা আর স্বীকৃতি পায়নি। সেসময় আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপ দু’টির নাম নেতাজি রেখেছিলেন ‘শহিদ’ ও ‘স্বরাজ’ দ্বীপ। স্বাধীনতার পর থেকে ফরওয়ার্ড ব্লক পোর্ট ব্লেয়ারের নাম নেতাজির দেওয়া নামে করার দাবি তোলে। কিছুদিন আগে নেতাজির দৌহিত্র চন্দ্র বসু প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখে দ্বীপদুটির নাম পরিবর্তনের দাবি জানান। তারপরই আন্দামান ও নিকোবরের তিনটি দ্বীপের নাম পরিবৰ্তনের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে কেন্দ্র। রস দ্বীপটির নাম নেতাজির নামে করা হচ্ছে নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বোস দ্বীপ। আর নীল ও হ্যাভলক দ্বীপের নাম হবে যথাক্রমে শহিদ দ্বীপ ও স্বরাজ দ্বীপ। এদিন আন্দামানে নেতাজির প্রতিকৃতিতে মাল্যদান করে ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী। এদিন মেরিনা পার্কে জাতীয় পতাকাও উত্তোলন করেন মোদি। নেতাজির সম্মানে একটি বিশেষ কয়েনও প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী। ৭৫ টাকার কয়েনটিতে জাতীয় পতাকাকে অভিবাদনরত নেতাজির ছবি থাকছে, পিছনে থাকছে আন্দামান সেলুলার জেলের ছবি। কয়েনটির ওজন ৩৫ গ্রাম। কয়েনটির ৫০ শতাংশ তৈরি রুপো দিয়ে, ৪০ শতাংশ তামা এবং বাকিটা তৈরি নিকেল এবং দস্তা দিয়ে। নেতাজির ছবির নিচেই সংস্কৃত এবং ইংরেজিতে লেখা ‘প্রথম পতাকা উত্তোলন দিবস।’

No comments

Powered by Blogger.