Header Ads

সুভাষচন্দ্ৰের নামে দ্বীপ



নাসিদ্দিন আহমেদে
আবার নতুন করে গোটা ভারতবাসীর মুখে মুখে সগৌরবে উচ্চারিত হবে নেতাজি সুভাষচন্দ্ৰ বসুর নাম। ১৯৪৩ সালের আজাদ হিন্দ ফৌজ বাহিনীর ৭৫ বৰ্ষ পূৰ্তি উপলক্ষে মোদী সরকারের এই ঘোষণা। আগামী ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৮ রব্বিার প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদী আন্দামান ভ্ৰমণে যাচ্ছেন। সেখানে তিনি নিজ হাতে ১৫০ মিটারের উঁচু জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে ‘রস আইল্যা`'-এর নাম সরিয়ে ‘নেতাজি সুভাষচন্দ্ৰ বসু আইল্যা`' বলে ঘোষণা করবেন। পাশাপাশি ‘নীল আইল্যা`'-এর নাম হবে ‘শহীদ দ্বীপ' এবং ‘হ্যাভলক দ্বীপ'-এর নাম হবে ‘স্বরাজ দ্বীপ'। অনেকদিন আগেই এমনই ভাবনা-চিন্তা ছিল। ২০১৭ সালের মাৰ্চ মাসে বিজেপি সাংসদ এল.এ.গণেশন  লোকসভায় বলেছিলেন যে, ‘যাদের বিদ্ধে স্বাধীনতা সংগ্ৰাম তাদেরই নামে কোনও জায়গার নাম থাকাটা অতি লজ্জাজনক বিষয়।' ব্ৰিটিশ জেনারেল হেনরি হ্যাভলকের নামে আজও দ্বীপটির নাম জড়িয়ে রয়েছে। তাই দীৰ্ঘদিনের প্ৰস্তাব মেনে এই  নতুন নামের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। জাপানীদের ভারত ত্যাগের পর আন্দামান দ্বীপে নেতাজি নিজ হাতে  পতাকা তুলেছিলেন। সেই স্মৃতি বিজড়িত মুহূৰ্তকে স্মরণ রাখার জন্য এই নতুন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। অনেকেই আবার বিষয়টিকে বিজেপি-র নাম বদলের রাজনীতি বলে মনে করছেন।


No comments

Powered by Blogger.