Header Ads

ধলা কাণ্ডে আলফা(স্বাঃ) জড়িত নেই, ইমেলে বাৰ্তা সংগঠনটির

গুয়াহাটিঃ ধলা কাণ্ডে এনআইএ-কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আলফা স্বাধীনের দাবি- ওই ঘটনায় আলফা(স্বাঃ) জড়িত নেই। তবে শিবসাগরের ডিমৌতে বিস্ফোরণে স্থানীয় ব্যবসায়ী কমল আগরওয়ালার মৃত্যুর দায় স্বীকার করেছে সংগঠনটি। শনিবার রাজ্যের এক বৈদ্যুতিন মাধ্যমে ইমেল পাঠিয়ে একথা জানিয়েছে নিষিদ্ধ সংগঠন আলফা(স্বাঃ)। সেইসঙ্গে ডিমৌয়ে বিস্ফোরণে নিরপরাধ অনুপ গুপ্তার মৃত্যুতে দুঃখ প্ৰকাশ করেছে সংগঠনটি। পাশাপাশি রাজ্য পুলিশ তথা এনআইএ-র কাছে গুপ্ত হত্যার ঘটনায় তদন্ত উদঘাটনের দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি। সেইসঙ্গে কেন্দ্ৰীয় সরকারের বিভিন্ন তদন্তকারী সংস্থার বিরুদ্ধে দুৰ্নীতির অভোযোগ তোলে সংগঠনটি। এদিকে ডিমৌর বিস্ফোরণের ঘটনায় এখন পৰ্যন্ত পুলিশ আলফা (স্বাঃ) চারজন  লিংকম্যানকে আটক করেছে। প্ৰসঙ্গত, দুৰ্গাপুজোর আগে শুক্ৰেশ্বরের পাশে বিস্ফোরণ, তারপর ধলায় নরহত্যার ঘটনা, ডিমৌ বিস্ফোরণ এইসব ঘটনার প্ৰেক্ষিতে গোটা রাজ্যে পুলিশ আলফা বিরোধী অভিযান শুরু করেছে। মহানগর তথা অরুনাচলপ্ৰদেশ-অসম সীমান্ত এলাকায় আলফা বিরোধী অভিযান তীব্ৰতর করেছে। অভিযানে এখন পৰ্যন্ত ১৭ জনকে গ্ৰেফতার করেছে পুলিশ। অন্যদিকে, মহানগরে উগ্ৰতারা মন্দিরের বিগ্ৰহের খোঁজ তো পাওয়াই গেল না, তার ওপর শুক্ৰবার রাতে শুয়ালকুচির সিদ্ধেশ্বরী দেবালয়ে চুরি হয়। একই রাতে গুয়াহাটির পাণ্ডু-মালিগাঁওয়ের হনুমান মন্দির, শীতলা মন্দির, রাম মন্দির, শনি মন্দির সহ মোট পাঁচটি মন্দিরে চুরির ঘটনা ঘটে। পুলিশ সূত্ৰের দাবি, দুষ্কৃতীরা এবারে মহানগরের মন্দিরগুলোকে তাদের সফ্‌ট টাৰ্গেট করেছে। 

No comments

Powered by Blogger.