Header Ads

মঙ্গলবার ৪৪ টি সংগঠনের ডাকা অসম বনধকে নিয়ে কঠোর অবস্থান নিয়েছে ডিমা হাসাও জেলাপ্রশাসন

 মঙ্গলবার সবকিছু খোলা রাখার নির্দেশ প্রশাসনের

বিপ্লব দেবঃ হাফলং
নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল বাতিলের দাবিতে কৃষক মুক্তি সংগ্রাম সমিতি অসম জাতীয়তাবাদী যুব পরিষদ সহ ৪৪ টি বিভিন্ন সংগঠনের ডাকা মঙ্গলবার ১২ ঘন্টার অসম বনধকে নিয়ে ডিমা হাসাও জেলাপ্রশাসন ও পুলিশপ্রশাসন কঠোর অবস্থান গ্রহন করেছে। জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট তথা জেলাশাসক সোমবার এক নির্দেশ জারি করেন মঙ্গলবার ডিমা হাসাও জেলায় সরকারি বেসরকারী কার্যলয় থেকে শুরু করে স্কুল কলেজ ব্যাঙ্ক পোষ্ট অফিস এলআইসি বাজার হাট দোকানপাট অত্যাবশকীয় সব সুবিধা গাড়ী চলাচল থেকে শুরু করে সব কিছু খোলা থাকবে। মঙ্গলবার সরকারি কার্যালয় গুলিতে কোন কর্মচারী অনুপস্থিত থাকেন তাহলে তার বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে এমনকি পাহাড়ি জেলাতে ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখলে এর বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী কোঠর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট অমিতাভ রাজখোয়া নির্দেশে উল্লেখ করেন। সোমবার বিকেলে জেলাশাসক কার্যালয় কনফারেন্স হলে জেলাশাসক অমিতাভ রাজখোয়ার পৌরহিত্যে সরকারী অফিসার বিভিন্ন দল সংগঠনের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হয়ে জেলাশাসক ইতিমধ্যে সুপ্রিম কোর্ট ও গৌহাটি হাইকোর্ট বনধকে অবৈধ বলে ঘোষনা করেছে।এমনকি আদালত বনধের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে। তাই বনধ সম্পূর্ণ অবৈধ। তাই মঙ্গলবার পাহাড়ি জেলার জনজীবন স্বাভাবিক রাখার জন্য জেলাশাসক বৈঠকে সকলের প্রতি আহ্বান জানান। এদিকে বৈঠকে অতিরিক্ত পুলিশসুপার পুষ্পরাজ সিং বলেন মঙ্গলবার কোন অবস্থায় বনধ সফল করতে দেওয়া হবেনা পাহাড়ি জেলাতে এর জন্য কোঠর নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়েছে। যে কোনও অবস্থায় ডিমা হাসাও জেলার জনজীবন স্বাভাবিক রাখা হবে কেউ যদি জোর করে বনধ করাতে চায় তাহলে এদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে স্পষ্ট করে দেন অতিরিক্ত পুলিশসুপার। এমনকি বনধ বানচাল করতে কঠিন চ্যালেঞ্জ গ্রহন করতে প্রস্তুত পুলিশ প্রশাসন বলে জানান পুষ্পরাজ সিং। এদিকে বৈঠকে জেলার বিভিন্ন সংগঠন জেলাশাসককে জানিয়ে দেয় মঙ্গলবার ৪৪ টি সংগঠনের ডাকা ১২ ঘন্টার অসম বনধে তাদের কোন সমর্থন নেই। এদিনের বৈঠকে অনান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলাশাসক বিক্রম দেব শর্মা দীপক জিডুং ইএসসি রাহুল দলে হেমাঙ্গ নবিস পার্বত্য পরিষদের ইএম ইউহিং পামে প্রমুখ।

No comments

Powered by Blogger.