Header Ads

অসময়ে নেতাজির আজাদ হিন্দ বাহিনীর পতাকা উত্তোলন করে দেশে ইতিহাস গড়লেন প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদি



 ছবি, সৌঃ এএনআই
নয়া ঠাহর প্রতিবেদন, নয়াদিল্লিঃ গোটা দেশে দুর্গোৎসবের রেশ এখনও কাটেনি। তার মধ্যেই রবিবার বিজেপি সরকার দিল্লির লালকেল্লায় উত্তোলন করল জাতীয় পতাকা। স্বাধীন ভারতের ইতিহাসে এই প্ৰথম ১৫ই অগাস্ট ছাড়া অন্য তারিখে লালকেল্লায় জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হল। পতাকা উত্তোলন করেন প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদি। তার কারণ, ১৯৪৩ সালের ২১ অক্টোবর, অর্থাৎ আজকের দিনটিতেই ভারতে আজাদ হিন্দ সরকার প্ৰতিষ্ঠার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা হয়েছিল। সেই সরকারের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু। এই সরকার প্ৰতিষ্ঠার ৭৫ বছর পূৰ্তি উপলক্ষে এদিন লালকেল্লায় জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এদিন পশ্চিমবঙ্গ ছাড়াও অসমের গুয়াহাটি, লামডিং সমেত বিভিন্ন জায়গায় জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এদিন পূৰ্ণ উদ্যোমে পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় জাতীয় পতাকা তুলে ‘আজাদ হিন্দ সরকার’ প্ৰতিষ্ঠার প্ল্যাটিনাম জয়ন্তী পালন করেন সেই রাজ্যের বিজেপি নেতৃত্ব। শ্যামবাজার পাঁচ মাথার মোড়ে রবিবার সকালে নেতাজির মূৰ্তিতে পুষ্পাৰ্ঘ দিয়েছেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, ‘‘ নেতাজি সুভাষের নেতৃত্বাধীন সেই সরকারকে স্বীকৃতি দিয়েছিল বিশ্বের ১০টি দেশ। কিন্তু দুৰ্ভাগ্যের বিষয় হল, স্বাধীন ভারতের কোনও সরকার অনুষ্ঠানিকভাবে নেতাজির সরকারকে স্বীকৃতি দেয়নি। আমাদের সরকার দিল।’’ বাংলার প্ৰতিটি জেলায় এদিন বিজেপি কাৰ্যালয়ে জাতীয় পতাকা উঠেছে। অন্যান্য রাজ্যেও বিজেপি পালন করেছে আজাদ হিন্দ সরকার প্ৰতিষ্ঠার ৭৫ বছর। পাশের রাজ্য অসমের গুয়াহাটি মহানগরের প্রাণকেন্দ্র পল্টনবাজারের নেতাজি চকে, নেতাজি মূর্তির পাদদেশে উদযাপিত হয় এই দিনটি। আমন্ত্ৰিত বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কটন বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড০ প্ৰশান্ত চক্ৰবৰ্তী, পদ্মশ্রী তথা সমাজকৰ্মী অজয় দত্ত প্রমুখ বিশিষ্টজন। দেশের প্রথম সরকার গঠনের এই পুণ্য দিবসটি আরও উজ্জ্বল হয়ে উঠে আসুক এই আশাই প্ৰকাশ করেন অনুষ্ঠানে উপস্থিত বক্তারা।

No comments

Powered by Blogger.