Header Ads

দূৰ্গা পুজোর পরেই পঞ্চায়েত নিৰ্বাচনী বিজ্ঞপ্তি জারি

জানুয়ারির প্ৰথম সপ্তাহে রাজ্যে পঞ্চায়েত নিৰ্বাচন, দুটির বেশি সন্তানের অভিভাবকরা প্ৰতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবে না, শিক্ষাগত যোগ্যতাও থাকতে হবে

গুয়াহাটিঃ অসমে জাতীয় নাগরিকপঞ্জী(এন আর সি) দ্বিতীয় চূড়ান্ত খসড়া তালিকা প্ৰকাশ পেলেও এখনও চূড়ান্ত তালিকা প্ৰকাশ পায়নি। দাবি আপত্তির কাজ চলছে। এখনও প্ৰায় ৫০ হাজার কৰ্মচারী এন আর সির চূড়ান্ত পৰ্যায়ের কাজ করে চলেছেন। সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা থাকা সত্বেও নিৰ্দিষ্ট সময়ে পঞ্চায়েত নিৰ্বাচন করা যাচ্ছিল না। গুয়াহাটি হাইকোৰ্ট বার বার সতৰ্ক করা সত্বেও কৰ্মচারীর অভাব এবং অন্যান্য পরিকাঠামো অভাবের জন্য নিৰ্বাচন করা যাবে না বলে অসম সরকার নিৰ্বাচন কমিশনকে জানিয়ে ছিল। গুয়াহাটি হাইকোৰ্ট ১৫ জানুয়ারির মধ্যে নিৰ্বাচন করার সময় সীমা ধাৰ্য করে দিয়েছিলেন। আজ রাজ্য নিৰ্বাচন কমিশনার হরেন্দ্ৰ নাথ বরা আজ জানিয়ে দিয়েছেন, আগামী জানুয়ারি মাসের প্ৰথম সপ্তাহের মধ্যে পঞ্চায়েত নিৰ্বাচন প্ৰক্ৰিয়া সম্পন্ন করা হবে। তিনি জানান, নতুন পঞ্চায়েত বিধি মেনে পঞ্চায়েত নিৰ্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বিগত বিধানসভায় গৃহীত পঞ্চায়েত সংশোধনী বিধি মেনে দুটির বেশি সন্তানের অভিভাবককে পঞ্চায়েত নিৰ্বাচনে প্ৰতিন্দ্বন্দ্বিতা করতে দেওয়া হবে না। পঞ্চায়েত বিভাগের দায়িত্ব প্ৰাপ্ত মন্ত্ৰী নবে দলে জানিয়েছিলেন, জনসংখ্যা নীতি মেনেই দুটির বেশি সন্তান থাকা অভিভাবকদের পঞ্চায়েত নিৰ্বাচনে প্ৰতিদ্বনিন্দ্বতা করার ক্ষেত্ৰে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। শিক্ষাগত যোগ্যতাও মেনে চলতে হবে। জেলা পরিষদ সদস্যের ক্ষেত্ৰে উচ্চ মাধ্যমিক, অবিসি ও অন্যান্যদের ক্ষেত্ৰে মাধ্যমিক পাশ, পঞ্চায়েত সদস্যের ক্ষেত্ৰে নূন্যতম যোগ্যতা অষ্টম শ্ৰেণী উত্তীৰ্ণ হতে হবে। এছাড়া প্ৰধানমন্ত্ৰীর ‘স্বচ্ছ ভারত অভিযান'-এর অঙ্গ হিসাবে পঞ্চায়েত নিৰ্বাচনে প্ৰতিদ্বন্দ্বিতা করা প্ৰতিজন প্ৰাৰ্থীর বাড়িতে শৌচালয় থাকতেই হবে। বিধানসভায় পঞ্চায়েত নিৰ্বাচনী সংশোধনী বিলটি পাশ করার সময় এআইইউডিএফ-এর আমিনুল ইসলাম এবং কংগ্ৰেসের রকিবুল হুসেন বিলটির তীব্ৰ বিরোধীতা করে বিধায়কদের ক্ষেত্ৰেও শিক্ষাগত যোগ্যতা আরোপ করার দাবি জানিয়েছিলেন, আমিনুলের প্ৰশ্ন ছিল একজন বিধায়ক অশিক্ষিত হয়েও দেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থা এবং অন্যান্য গুরুত্বপূৰ্ণ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার পায়। তাই তাদের শিক্ষাগত যোগ্যতা থাকাও জরুরী। নিৰ্বাচন কমিশনার বরা আজ জানিয়েছেন দূৰ্গা পুজোর পরেই নিৰ্বাচনী বিজ্ঞপ্তি জারি করা হবে। ‘ত্ৰি স্তরীয়' পঞ্চায়েত ব্যবস্থা তিন বারে ভোট গ্ৰহণ করা হবে বলে কমিশনার জানিয়েছেন। 

No comments

Powered by Blogger.