Header Ads

সোমলতা'র গান দিয়ে শেষ হল আনন্দ মন্দিরের শারদ উৎসব

 মহাদশমীর দিন আনন্দ মন্দিরে সোমলতার গানের অনুষ্ঠান

নিউ জার্সির সমরসেট থেকে আশীষ কুমার দে 
সন্ধ্যায় আনন্দ মন্দিরে মাকে বরন করে সিঁদুর খেলায় মেতে ওঠেন সব বয়সী মহিলারা। পিছিয়ে পড়েননি পুরুষেরাও, ঢাক বাজিয়ে, ধুনুচি নাচে সঙ্গ দিয়েছেন সমানতালে। কম বয়সী মহিলাদের মধ্যে অনেকেই সমবেত ভাবে নাচে অংশ নেন। বরন ডালায় ধান, দূর্বা, পান সুপারি সহ সিঁদুর সবই ছিল। খোঁজ নিয়ে জানতে পারলাম সব পাওয়া যায় এই বিদেশে। বিসর্জন হয়ে গেলেও প্রতিমা এই মন্দিরেই থাকবে আগামী বছর নতুন মুর্তি আসার পর এই প্রতিমাকে জল দিয়ে গলিয়ে ফেলা হবে। সিঁদুর খেলার শেষে রাতের খাবার ও তার পরেই শুরু হয় সুদূর কলকাতা থেকে আগত বিখ্যাত সঙ্গীত শিল্পী সোমলতা আচার্য চৌধুরীর ব্যান্ড, "দ্য এসেস" এর পরিবেশনা। তাঁর নিজস্ব গাওয়া গান ছাড়াও মান্না দে, ওস্তাদ বড়ে গোলাম আলির ঠুংরি, বেগম আখতার, নুসরাত ফতে আলির সূফী গান, রবীন্দ্র সঙ্গীত পরিবেশন করেন তিনি। তার গায়কী ও ব্যান্ডের রিদম মাতিয়ে তোলে শ্রোতাদের। তাঁর গাওয়া 'তোমার ঘরে বসত করে কয়জনা' ও শেষে খালি গলায় রবীন্দ্র সঙ্গীত মনোমুগ্ধ করে সকলকে। প্রবাসী বাঙালি জাতির সবচেয়ে বড় উৎসবের সমাপ্তি হল সোমলতা'র সুরের মূর্ছনায়।

No comments

Powered by Blogger.