Header Ads

ভারতের প্রথম স্বাধীন সরকার দিবস পালিত হল লামডিং এ

লামডিং থেকে পলি প্রীতম
নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর প্রচেষ্টায় ১৯৪৩ সনের ২১ শে অক্টোবর সিঙ্গাপুরে আজাদ হিন্দ ফৌজ কৰ্তৃক প্রতিষ্ঠিত হয় আজাদ হিন্দ সরকার। ভারতের প্রথম স্বাধীন সরকার গঠনের ৭৫ তম দিবস লামডিং উৎযাপিত হল যথাযথ শ্রদ্ধা ও সন্মানের সঙ্গে। আজাদ হিন্দ পাবলিক লাইব্রেরীর উদ্যোগে দিনটি উৎযাপিত হয় সুভাষ ময়দানের নেতাজি মূর্তির পাদদেশে। আজাদ হিন্দ সরকারের পতাকা উত্তোলন করেন মুখ্য অতিথি লামডিং কেন্দ্ৰের বিধায়ক শিবু মিশ্র। তিনি ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামী নেতাজির অবদান নিয়ে আলোচনা করেন। ভারতের প্রথম স্বাধীন সরকারের প্রতিষ্ঠা করেছিলেন নেতাজি। কিন্তু দুঃখের বিষয় এই যে এতদিন পর্যন্ত ভারত সরকার এই সরকারকে উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে স্বীকৃতি দানে বিরত ছিল। দেশাত্মবোধক সঙ্গীত পরিবেশন করেন লামডিঙের বিশিষ্ট সঙ্গীত শিল্পী মন্টুলাল আচার্য, চন্দন আইচ এবং অনিতা আইচ। তবলায় সহযোগীতা করেন বিশ্বজিত দত্ত এবং সিন্টু আইচ। বর্তমান কেন্দ্রীয় সরকার এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নেতাজি এবং এই আজাদ হিন্দ সরকারকে স্বীকৃতি দেওয়ার যে প্রয়াস করেছেন তার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন বিধায়ক। এই ঘটনা সমগ্র বাঙালি জাতির পক্ষে গৌরবজনক বলে মন্তব্য করেন বিধায়ক। এর আগে আজাদ হিন্দ সরকার গঠনের ইতিহাস নিয়ে আলোচনা করেন লামডিং কালিবাড়ী কমিটির সভাপতি বিজয় রঞ্জন দাস। নেতাজির প্রতিকৃতিতে মাল্যদান করেন প্রজাপিতা ব্রহ্মকুমারী ঈশ্বরীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কল্পনা বেহেনজি। নেতাজি মূর্তির পাদদেশে প্রদীপ প্রজ্বলন করেন নেতাজি প্রেমী প্রয়াত বিজন সিংহের আবাল্য সঙ্গী অবিনাশ মজুমদার এবং বিজন সিংহের ভাতৃপুত্র সুভাস সিংহ। পুষ্পার্ঘ প্রদানে ছিলেন উপ-পৌরপতি উত্তম দাস, কালিবাড়ী কমিটির সম্পাদক অলোক বর্দ্ধন এবং কোষাধ্যক্ষ সঞ্জীব রায়, জন্ম জয়ন্তী কমিটির সভাপতি এবং সম্পাদক দিলীপ দাস এবং সুশান্ত দে, আজাদ হিন্দ পাবলিক লাইব্রেরীর সম্পাদক সঞ্জীব দে প্রমুখ। গোটা অনুষ্ঠানটি সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করেন অনিমেষ মজুমদার এবং স্বপন দাস।

No comments

Powered by Blogger.