Header Ads

অবৈধ বিদেশী নাগরিকদের জন্য ডিটেনশন ক্যাম্প তৈরি করে দেবে কেন্দ্ৰ


 ফাইল চিত্ৰ
নয়াদিল্লিঃ অসমে বসবাসকারী অবৈধ বিদেশী নাগরিকদের জন্য ডিটেনশন ক্যাম্প তৈরি করা নিয়ে বুধবার সুপ্ৰিম কোৰ্টে শুনানি হয়। ইতিমধ্যেই কেন্দ্ৰ গৃহ নিৰ্মাণের জন্য রাজ্য সরকারকে অৰ্থ বরাদ্দ করেছে এবং খুব শীঘ্ৰই এই ঘরগুলি তৈরি করা হবে জানিয়েছে কেন্দ্ৰ। এইসকল নাগরিকদের চিকিৎসা সহ অন্যান্য মৌলিক সুবিধাগুলি দেওয়ার নিৰ্দেশ দিয়েছে সুপ্ৰিম কোৰ্ট। শুধু তাই নয়, এইসব নাগরিকদের সন্তানরা তাদের মা-বাবার সঙ্গে থাকলে কি সমস্যা হতে পারে তা নিয়েও কেন্দ্ৰের মতামত চেয়েছে সৰ্বোচ্চ আদালত। বিষয়টি নিয়ে আগামী ২০ সেপ্টেম্বর পরবৰ্তী শুনানির দিন ধাৰ্য করা হয়েছে।  অন্যদিকে, কোকরাঝাড়ের ডিটেনশন ক্যাম্প থেকে সফিয়া খাতুনকে মুক্তি দেওয়ার নিৰ্দেশ দিল সৰ্বোচ্চ আদালত। এর আগে খাতুনকে বিদেশী বলে ঘোষণা করেছিল ফরেন ট্ৰাইবুন্যাল।দুবছর ধরে ডিটেনশন ক্যাম্পে বন্দী ছিলেন সফিয়া খাতুন। এরপর সৰ্বোচ্চ আদালতের নিৰ্দেশেই বরপেটার সীমান্ত পুলিশ বিষয়টির তদন্ত শুরু করে। এই তদন্তে সফিয়ার পাঁচ ভাই, স্বামী এবং মা-বাবা  ভারতীয় নাগরিক বলে প্ৰমাণিত হন।অসম সরকার এই তথ্য নথিপত্ৰ সহ বুধবার সৰ্বোচ্চ আদলতের সামনে রাখলে ন্যায়াধীশ কোরিয়ান যোসেফ এবং ন্যায়াধীশ এসকে কৌলের খণ্ড বিচারপীঠ সফিয়াকে মুক্তি দেওয়ার নিৰ্দেশ দেয়।    



No comments

Powered by Blogger.