Header Ads

সাংবাদিকদের নিরাপত্তার দাবিতে হাফলং জেলাশাসক কার্যালয়ের সামনে ধর্নায় ডিমা হাসাও জার্নালিষ্ট ইউনিয়ন


বিপ্লব দেবঃ হাফলং 
সমগ্র দেশ তথা রাজ্যের সঙ্গে ডিমা হাসাও জার্নালিষ্ট ইউনিয়নের উদ্যোগে শনিবার হাফলং জেলাশাসকের কার্যালয়ের ধর্না প্রদর্শন করেন পাহাড়ি জেলার কর্মরত সাংবাদিকরা। সমগ্র রাজ্য জুরে সাংবাদিকদের উপরে ক্রমাগত আক্রমন অত্যাচার হুমকি দেওয়ার মত ঘটনা বেড়ে চলছে। এমনকি দেশের বিভিন্ন প্রান্তে সাংবাদিকদের খুন করার মত ঘটনা ঘটলে ও আজ পর্যন্ত সরকার খুনীদের শনাক্ত করে কোনও শাস্তি প্রদান করতে পারেনি। এমনকি দেশের ৩৩ জন সাংবাদিককে খুন করার পর ও এসব খুনের একটি বিচার হয়নি। তারমধ্যে গনতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভ সংবাদ মাধ্যমের অধিকার জোর করে খর্ব করা হচ্ছে। এমনকি ডিমা হাসাও জেলায় সাংবাদিকদের বিভিন্ন ভাবে হেনস্তা করা ও ফোনে হুমকি দেওয়ার মত ঘটনা বেড়ে চলছে এনিয়ে জেলার সাংবাদিকরা নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন। ডিমা হাসাও জার্নালিষ্ট ইউনিয়নের উপ-সভাপতি নির্মল সিং বলেন পুরো দেশ জুরে সংবাদ মাধ্যমের অধিকার খর্ব করার যে চেষ্টা চলছে এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন দেশজুরে সাংবাদিক দের উপর যে ভাবে আক্রমনের ঘটনা বাড়ছে এতে সাংবাদিকরা নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন কিন্তু সরকার বা প্রশাসন এসব রুখতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হচ্ছে। হাফলং প্রেস ক্লাবের সভাপতি অনুপ বিশ্বাস বলেন সাংবাদিকরা সমাজ তথা দেশের জন্য নিঃস্বার্থ ভাবে কাজ করার পর ও সাংবাদিকদের সুরক্ষা ও নিরাপত্তার বিষয়ে সরকার বা প্রশাসন গুরুত্ব আরোপ করছেনা। ডিমা হাসাও জার্নালিষ্ট ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক বিপ্লব দেব বলেন পাহাড়ে কর্মরত সাংবাদিকরা বিভিন্ন সময় হেনস্তার মুখে পড়ছেন। এতে সাংবাদিকরা নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন তাই পাহাড়ি জেলার কর্মরত সাংবাদিকদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে সরকার তথা প্রশাসনের উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহন করা উচিত।  সাংবাদিক পঙ্কজ কুমার দেব সাংবাদিক দের সুরক্ষার দিকটি নিশ্চিত করতে সরকার তথা প্রশাসনকে  উপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহন করা দাবি জানান। শনিবার ধর্নাশেষে ডিমা হাসাও জেলাশাসক অমিতাভ রাজখোয়ার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সানোয়ালের উদ্দেশ্যে দুটি পৃথক পৃথক স্মারকপত্র প্রদান করা হয় ডিমা হাসাও জার্নালিষ্ট ইউনিয়নের পক্ষ থেকে।

No comments

Powered by Blogger.