Header Ads

২০১৯-র লোকসভা নির্বাচন ও পার্বত্য পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে পাহাড়ে বিজেপির ব্যাপক প্রস্তুতি


বিপ্লব দেবঃ হাফলং আগামী লোকসভা নির্বাচন ও উত্তর কাছাড় পার্বত্য স্বশাসিত পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে পাহাড়ি জেলায় বিজেপি দল ব্যাপক তৎপরতা শুরু করেছে। বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব হাফলঙে গত দু‘দিন থেকে নির্বাচনকে সামনে রেখে দলীয় সভা করে চলছে। লক্ষ্য একটাই ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচন ও উত্তর কাছাড় পার্বত্য স্বশাসিত পরিষদের নির্বাচনে বিজেপির বিপুল জয়। পার্বত্য পরিষদের ২৮ টি আসনেই বিজেপির জয় নিশ্চিত করার পাশাপাশি ডিফু ও হাফলংকে  নিয়ে একমাত্র লোকসভা আসনটি এবার বিজেপির দখলে আনতে পাহাড়ি জেলার সর্বস্তরের বিজেপি নেতা কর্মীদের এক জোট হয়ে কাজ করে যাওয়ার আহ্বান জানান রাজ্য বিজেপির সাধারন সম্পাদক (সাংগঠনিক) ফনীন্দ্র নাথ শর্মা ও রাজ্য বিজেপির মুখপাত্র তথা ডিমা হাসাও জেলা বিজেপির প্রভারী রামকৃষ্ণ ঘোষ। সোমবার হাফলং সাংস্কৃতিক ভবনে ডিমা হাসাও জেলা বিজেপির এক কর্মী সভায় আদ্যপ্রান্ত আগামী লোকসভা নির্বাচন ও উত্তর কাছাড় পার্বত্য স্বশাসিত পরিষদের নির্বাচনের রনকৌশল নিয়ে আলোচনা হয়। কর্মী সভায় আগামী লোকসভা নির্বাচন ও পার্বত্য পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বিজেপির নেতা কর্মীদের তৃনমূল স্তরে গিয়ে এক জোট হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান ডিফু ও হাফলং মিলে একমাত্র লোকসভা আসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রভারী তথা বোকাজানের বিধায়ক ডঃ নুমুল মমিন। সোমবার হাফলং সাংস্কৃতিক ভবনে এক কর্মী সভায় ডঃ নুমুল মমিন বলেন আগামী লোকসভা নির্বাচনে ডিফু লোকসভা আসনে বিজেপি যে বিশাল ব্যবধানে জয়ী হবে তা একপ্রকার নিশ্চিত। তাই দলকে আরোও শক্তিশালী করে তুলতে বিজেপির সকল নেতা কর্মী এক জোট হয়ে এখন থেকেই কাজে নেমে পড়তে হবে।  তাছাড়া উত্তর কাছাড় পার্বত্য পরিষদের নির্বাচনে বিজেপি যাতে ২৮ টি আসনেই জয়ী হয় সে লক্ষ্য নিয়ে দলের নেতা কর্মীদের কাজ করতে হবে। বিজেপির প্রদেশ নেতৃত্ব বলেন লোকসভা নির্বাচনের বিজেপির প্রদেশ নেতৃত্ব বলেন লোকসভা নির্বাচনের আগে এ বছরেই পার্বত্য পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আগামী সেপ্টেম্বরেই পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার পূর্ণ সম্ভাবনা রয়েছে। তাই ডিমা হাসাও জেলা বিজেপি নির্বাচনকে সামনে রেখে জেলার বিভিন্ন স্থানে দলীয় সভা সমিতি করে চলছে। কর্মী সভায় বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব বলেন এবার পার্বত্য পরিষদের নির্বাচনে যে সব প্রার্থীর জয়ের সম্ভাবনা ১০০ শতাংশ রয়েছে তাদেরকেই দলীয় টিকিট প্রদান করা হবে। এতে নতুন পুরোন দুটি মুখই থাকতে পারে। সোমবার বিজেপির কর্মী সভায় পরিষদ নির্বাচনের দলীয় প্রত্যাশী প্রার্থীরাও  উপস্থিত ছিলেন। তাছাড়া ওই কর্মী সভায় অনান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রাজ্য বিজেপির উপ-সভাপতি লংকি ফাংচু উত্তর কাছাড় পার্বত্য স্বশাসিত পরিষদের সিইএম দেবোলাল গার্লোসা পরিষদের চেয়ারপার্সন রানু লাংথাসা সহ দলীয় নেতা কর্মীরা।হাফলঙে বিজেপির কর্মী সভায় বক্তব্য রাখছেন বোকাজানের বিধায় নুমুল মমিন

No comments

Powered by Blogger.