Header Ads

মুখ্যমন্ত্ৰী বরাক সফরের প্ৰাককালে বিজেপির বিরুদ্ধে দুৰ্নীতির অভিযোগ

গুয়াহাটিঃ মুখ্যমন্ত্ৰী সৰ্বানন্দ সনোয়াল বরাক উপত্যকা সফরের প্ৰাককালে বরাকের কয়লা, বাৰ্মিজ সুপারি, বালি মহল প্ৰভৃতির সঙ্গে বরাক উপত্যকার শাসকদলের বিধায়কদের জড়িত থাকার অভিযোগ তুলে আজ  করিমগঞ্জের আর টি আই কৰ্মীরা বিস্ফোরক নানা অভিযোগ করেন। আজ দিসপুর প্ৰেস ক্লাবে তাপু রাজকুমার, জ্ঞানচান্দ কানো, আইনজীবি দাইয়ান হুসেন অভিযোগ করেন, বরাক উপত্যকায় করিমগঞ্জ জেলার সিংলাচেড়া গ্ৰাম পঞ্চায়েত ব্যাপক হারে দুৰ্নীতি দেখেও সরকার নিরব। কয়লা মাফিয়া আব্দুল আহাদ চৌধুরীর বাড়িতে বাজেয়াপ্ত করা বহুচৰ্চিত ‘ডায়েরী'তে বিজেপি বিধায়ক অমর চান্দ জৈনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে। কয়লা দুৰ্নীতির সঙ্গে সে জড়িত। তার বেআইনী পাথর কোয়ারি আছে। পাথারকান্দির বিজেপি বিধায়ক কৃষ্ণেন্দু পাল ৪-৫ মাস আগে মুখ্যমন্ত্ৰীকে চিঠি দিয়ে বাইরে থেকে আসা বাৰ্মিজ সুপারি সম্পৰ্কে সিআইডি তদন্তের দাবি জানিয়েছিলেন। কিন্তু সরকার বিজেপি বিধায়করা জড়িত আছে জানা সত্বেও কোনও ব্যবস্থা গ্ৰহণ করে নি।  রাতাবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্ৰে প্ৰধানমন্ত্ৰী আবাস যোজনা নামে ব্যাপক দুৰ্নীতির নানা অভিযোগ তুলে ধরে অভিযোগ করেন সৌদি আরবে চাকরি করা মানুেষর নামেও জব কাৰ্ড ইসু্য করা হয়েছে। রাতাবাড়ির বিজেপি বিধায়ক কৃপানাথ মালার বিরুদ্ধেও তারা অভিযোগ করেন। তাদের অভিযোগ কংগ্ৰেস জমানায় পঞ্চায়েতগুলিতে দুৰ্নীতি হয়েছে তবে, বিজেপি রাজত্বে দুৰ্নীতির সব সীমা ছাড়িয়ে গেছে। বিজেপির সমৰ্থকরা সরকারি জমি দখল থেকে শুরু করে সব ধরণের বেআইনী কাজে লিপ্ত হয়েছে।

No comments

Powered by Blogger.